কারাগারে আদালত বসানো সংবিধানসম্মত না : ড. কামাল

Post Image

কারাগারের ভেতর আদালত বসিয়ে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিচার সংবিধানসম্মত নয় বলে উল্লেখ করেছেন সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. কামাল হোসেন।

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে গণফোরাম আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির সভাপতি ড. কামাল হোসেন এ কথা বলেন।

বিদ্যমান আইনে কারাগারে আদালত স্থানান্তর করে বিচার সংবিধানসম্মত কি না, সাংবাদিকের এমন প্রশ্নের জবাবে প্রবীণ এ আইনজীবী বলেন, ‘এটা সংবিধান সম্মত না, আমি যদি কোর্টে যাই, আমি এটাই বলব।’

সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার নিরাপত্তাহীনতার কথা উল্লেখ করে ৪ সেপ্টেম্বর রাজধানীর সরকারি আলিয়া মাদ্রাসার মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী বিশেষ জজ আদালত স্থানান্তর নাজিমুদ্দিন রোডে অবস্থিত পুরোনো ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের প্রশাসনিক ভবনে নেওয়া হয়। পরের দিন ৫ সেপ্টেম্বর থেকে সেখানে খালেদা জিয়ার জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার বিচার শুরু হয়েছে। তখন থেকে বিএনপি একে সংবিধান বহির্ভূত ও ক্যামেরা ট্রায়াল বলে অভিযোগ করে আসছে।

বর্তমানে কারাগারে থাকা অসুস্থ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা দেওয়া উচিত বলে আজকের সংবাদ সম্মেলনে জানান ড. কামাল হোসেন।

আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বৃহত্তর ঐক্যের দাবি জোরালো হচ্ছে, সে প্রসঙ্গে জানতে চাইলে জাতীয় ঐক্যের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি জানান, জামায়াতে ইসলামীকে নিয়ে বৃহত্তর ঐক্য হলে গণফোরাম তাতে শামিল হবে না।

দেশে নির্বাচনী পরিবেশ নিশ্চিত করার দাবি জানিয়ে ড. কামাল বলেন, ‘নির্বাচন যদি হয়, যেটা আশা করি আমরা, আমরা বারবার বলছি যে, হোক। হওয়ার জন্য পরিবেশটা রক্ষা করতে হয়। সেই জিনিসের উল্টাটা হচ্ছে। ভয়-ভীতি, না জানিয়ে ধরপাকড়, সাদা কাপড়ে মানুষ এসে ধর-পাকড়। আর সাদা পোশাক পরার ব্যাপারে তো কিছুটা তদন্তের দরকার আছে। এরা কারা?’